মাফ চাইলেন পরিচয় লুকিয়ে মক্কায় অনুপ্রবেশকারী সেই ইহুদি সাংবাদিক

পবিত্র শহর মক্কা মুকাররমায় অমুসলিমদের প্রবেশ নিষেধ জানার পরও সেখানে অনুপ্রবেশকারী সেই ইহুদি সাংবাদিক ক্ষমা চেয়েছেন। মক্কার বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান ও স্থাপনা নিয়ে টিভি প্রতিবেদন তৈরির পর বিশ্বব্যাপী ব্যাপক সমালোচনার শিকার হন গিল তামারি নামে ওই সাংবাদিক। এরপরই ক্ষমা চাইলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাতে ডন জানায়, ইসরাইলের আঞ্চলিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বী ইসাওয়ি ফ্রেইজ এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি বলেছেন, উপসাগরীয় দেশগুলোর সাথে ইসরাইলের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই প্রতিবেদন ‘নির্বুদ্ধিতা ও ক্ষতিকর’।

গিল তামারি ইসরাইলি টিভি চ্যানেল ‘চ্যানেল-১৩’-এর জন্য সৌদি আরব সম্পর্কে ১০ মিনিটের একটি ভিডিও প্রতিবেদন তৈরি করেন। প্রতিবেদনে দেশটির পবিত্র স্থানগুলোতে তাকে গাড়িতে ঘুরতে দেখা যায়। একইসাথে দেখা যায়, তার সাথে একজন স্থানীয় গাইডও আছেন, যার চেহারা গোপন করা হয়েছে, যেন তাকে চেনা না যায়।

ইসাওয়ি ফ্রেইজ তার দেশের সরকারি বার্তা সংস্থাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে আরো বলেন, ‘আমার আফসোস হচ্ছে যে, এরকম কাজ করা এবং করে আবার গর্ব করা স্রেফ নির্বুদ্ধিতা। শুধুমাত্র রেটিংয়ের জন্য এরকম প্রতিবেদন প্রকাশ করা সর্বোচ্চ অদায়িত্বশীলতা ও ক্ষতিকর।’

এদিকে, এই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। টুইটারে ‘আ জিউ ইন মক্কা’স গ্র্যান্ড মস্ক’- নামে একটি হ্যাশট্যাগ ব্যাপকভাবে সাড়া জাগিয়েছে। এই ঘটনার সমালোচনা করতে গিয়ে ইসরাইলপন্থী অধিকারকর্মী মোহাম্মদ সৌদ বলেছেন, ‘হে আমারে প্রিয় ইসরায়েলি বন্ধুরা, আপনাদেরই এক সাংবাদিক পবিত্র কাবায় ঢুকে নির্লজ্জভাবে সেখানকার ভিডিও করেছে। ইসলামের মতো ধর্মে আঘাত করায় চ্যানেল-১৩-কে ধিক্কার জানাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *